Posts

Showing posts from 2021

রাগের ছবি

Image
১ ) মেঘ মল্লার : মেঘ ( সংস্কৃত বুৎপত্তি ) মল্লার একটি হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় মৌসুমী   রাগ।   কথায় বলে এই রাগ বৃষ্টিকে আমন্ত্রণ করে যেখানে গাওয়া হয় সেখানে। ' মেঘ মল্লার ' রাগ মেঘের অনুরূপ যার মধ্যে মল্লারের আভা রয়েছে। মল্লার পরিবারের অন্যান্ন রাগগুলি হলো : মেঘ , মিয়াঁ কি মল্লার , গৌড় মল্লার , রামদাসী মল্লার , ধুলিয়া মল্লার ইত্যাদি। ঠাট : কাফি। আমাজন প্রাইমের ' বন্দিশ ব্যান্ডিট ' ওয়েব সিরিজের লাস্ট এপিসোডে ফরিদ হাসান আর মোহাম্মদ আমান মেঘ মল্লার গেয়েছে এবং তাতে বৃষ্টি এসেছে। শঙ্কর - এহসান - লয় এই   গানের দ্বায়ীত্বে ছিলেন। একটা আর্টিকলে তাদের কথা পড়লাম যে , যোধপুরে ২০২০ - র এপ্রিল মাসে এই গানটা যেদিন পুরো গাওয়া হয়েছিল সত্যি বৃষ্টি পড়েছিল , যা কোনোদিনও হয় নি নাকি। ২ ) গৌড় মল্লার :   হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের একটি রাগ যা মল্লারের বৈশিষ্ট্য বহন করে আর এই   ' গৌড় ' নামের রাগটি এখন বিলুপ্ত হয়ে গেছে , মানে সে রকম করে কেউ গায় না । মল্লার পরিবারের

পোলোর কথা

ঘটনাটা ১২৯৪ সালের পর, ইতালির বণিক-পর্যটক মার্কো পোলো তাঁর নিজের দেশে ফিরে যাবার পরে, তাঁর ভ্রমণের বৃত্তান্ত বন্ধু-বান্ধবদের যখন বলতে শুরু করলেন, এক মজার ঘটনা ঘটেছিলো। যার জন্য তাঁকে সবাই মিথ্যে বাদী বলতেন, বেচারা, প্রমান দিতে পারেন নি বলে । আনুমানিক ১২৯২ থেকে ১২৯৪  সালের মধ্যে মার্কো পোলো ভারতে এসেছিলেন, ইতালিতে তার অটোবায়োগ্রাফি (বা  ভ্রমণকাহিনী ই.এ. travelogue) "বুক অফ দি মার্ভেলস অফ দি ওয়ার্ল্ড " যা ইংরেজিতে "দি ট্রাভেলস অফ মার্কো পোলো " নাম সুপরিচিত, যেটা অনুবাদ করেছেন আরেক বিখ্যাত ইতালীয় লেখক রুসতিছেল দা পিসা (রুসতিসিয়ানো) । পোলো দুই বার ভারতে আসেন, প্রথম বার খুব অল্প সময়ের জন্য, পরের বার প্রায় দেড় বছরের বেশি ছিলেন । মার্কো পোলো ইতালিতে ফিরে গিয়ে ভারত বর্ষ সম্পর্কে ঐশ্বর্য, প্রাচুর্য, সমৃদ্ধশালী এক 'জ্ঞানের ভান্ডারের দেশ' তা তো বলেইছেন, সাথে ফলাও করে এক বিচিত্র ময় গাছের গপ্পো জুড়লেন । বিরাট লম্বা এক গাছ, তাতে শাখা-প্রশাখা, ডাল-পালা কিচ্ছু  নেই, শুধু মগডালে কিছু খোঁচা-খোঁচা চুলের মতো কয়েক গুচ্ছ কাঠি-কাঠি পাতা । খুব শক্ত গাছ, ঝড়ে উল্টায় না, সহজে কাটাও যা